টানা একমাস পর সীমিত পরিসরে মন্ত্রিসভার বৈঠক বসছে আগামীকাল

বুধবার, মে ৬, ২০২০,৩:১৩ অপরাহ্ণ
0
4

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আগামীকাল বৃহস্পতিবার করোনার কারণে টানা একমাস পর সীমিত পরিসরে মন্ত্রিসভার বৈঠক বসছে। রাষ্ট্রীয় কিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত, যেগুলোতে মন্ত্রিসভার অনুমোদন প্রয়োজন, সেসব বিষয় অনুমোদন দিতেই ছোট পরিসরের বিশেষ এই মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। 

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, প্রধামন্ত্রীসহ চার থেকে পাঁচজন মন্ত্রী গণভবনে অনুষ্ঠিতব্য বৃহস্পতিবার সকাল ১১টার বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন। শুধু এজেন্ডার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রীরাই বৈঠকে ডাক পেয়েছেন। গত ৬ এপ্রিল গণভবনেই মন্ত্রিসভার সর্বশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। ওই বৈঠকে আটজন মন্ত্রী অংশ নিয়েছিলেন।

অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আগামীকালের বৈঠকে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল অংশ নিচ্ছেন। অপর একটি সূত্রে জানা গেছে, মন্ত্রিসভার বৈঠকে এনবিআর থেকে ভ্যাট ও ইনকাম ট্যাক্স সংক্রান্ত একটি সংশোধন প্রস্তাব উঠতে পারে। এতে করোনার কারণে নির্ধারিত সময়ে যারা ভ্যাট ও ইনকাম ট্যাক্স পরিশোধ করতে পারেননি তারা বাড়তি সময় পাবেন। সূত্র জানায়, বিদ্যমান নিয়মে নির্ধারিত সময়ের পর ওগুলো দেওয়ার সুযোগ রাখা নেই। তাই এ বিষয়ে নীতি নির্ধারণী সিদ্ধান্ত দেবে মন্ত্রিসভা।

সরকারের নীতি নির্ধারণীর সর্বোচ্চ পর্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তগুলোর অনুমোদন নেওয়া হয় মন্ত্রিসভা বৈঠকে। করোনার কারণে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে দেশব্যাপী চিকিৎসা, ত্রাণ ও লকডাউন পরিস্থিতি সামলাতেই সরকারের ব্যবস্থা থাকতে হয়েছে। এ কারণে নিয়মিত মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হচ্ছে না। তবে বিভিন্ন কাজে সংশ্লিষ্টদের প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী। এর বাইরে দেশের ৬৪ টি জেলায় ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনাও দিয়েছেন সরকার প্রধান। 

প্রধানমন্ত্রী যখন যেখানে প্রয়োজন মনে করেন সেখানেই মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। মন্ত্রিসভার বৈঠক মাসে বা বছরে কতটি হতে হবে তার নির্ধারিত কোনো সংখ্যা নেই। সাধারণত প্রধানমন্ত্রী দেশে না থাকলে মন্ত্রিসভা বৈঠক হয় না। এর বাইরে প্রায় প্রতি সপ্তাহের সোমবার মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠানের রেওয়াজ রয়েছে। সম্প্রতি এতো দীর্ঘ বিরতিতে মন্ত্রিসভা বৈঠক হওয়ার নজিরের কথা কেউ বলতে পারেননি। অনেক সময় প্রধানমন্ত্রী দেশে থাকলেও গুরুত্বপূর্ণ কার্যসূচি না থাকলে মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠক হয় না।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে