জপমালা রানী গীর্জায় চসিক প্রশাসক সুজন

শনিবার, ডিসেম্বর ২৬, ২০২০,৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ
0
24

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম সুজন গতকাল বিকেলে খ্রীস্টান ধর্মাবলম্বীদের শুভ বড়দিন উপলক্ষে নগরীর পাথরঘাটা জপমালা রানী ক্যাথেড্রাল গীর্জায় গিয়ে স্থানীয় খ্রীস্ট গুরু বিশপ ফাদার সুব্রতকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এই সময় গীর্জায় সমবেত খ্রীস্টান ধর্মাবলম্বীদের সাথে কুশল বিনিময় কালে বলেন পাপের শৃঙ্খলে আবদ্ধ মানুষকে মুক্ত করতে ঈশ্বর প্রভূ যীশুকে দুই হাজার বছরেরও আগে আজকের এই দিনে ধরাধামে পাঠিয়েছিলেন।

তাঁর মহান বাণী পাপীকে নয়, পাপকে ঘৃণা করো। দয়ালু হও, দুর্বলেরে রক্ষা করো এবং দুর্জনেরে হানো। এই বার্তা ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সর্বজনীন। তিনি আরো বলেন, পৃথিবীর অসাম্প্রদার্য়িক চেতনা নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে সম্ভাবনাময় এক বাংলাদেশ। যে বাংলাদেশে সর্ব ধর্মের মানুষ এক চেতনার অধীনে থেকে বাস করে। সে চেতনা হচ্ছে অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের চেতনা। যখন গোধূলী নামে তখন একই সঙ্গে মসজিদ থেকে আযানের ধ্বনি এবং শাঁখের ধ্বনি জানান দেয় যে আমরা মহান বাঙ্গালী জাতি,আমাদের মধ্যে কোন বৈষম্য নেই। সেই জম্মলগ্ন থেকেই আমরা অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলাদেশ নামেই পরিচিত বিশ্বের কাছে। করোনা ছোবলে স্বজন হারানোর বেদনার মধ্যেও বড়দিনে আমরা সৃষ্টি কর্তার কাছে প্রার্থনা করি-রক্ষা করো আমাদের, প্রাণ ও প্রকৃতি জগতকে। আমাদের বিশ্বাস ঈশ্বর এই প্রার্থনা কবুল করবেন।

কারণ তিনিই স্রষ্টা, তাই কখনো তাঁর সৃষ্টিকে ধ্বংস করবেন না। এসময় প্রশাসক মহোদয়ের সাথে উপস্থিত ছিলেন সাবেক কাউন্সিলর হাসান মুরাদ বিপ্লব, সংরক্ষিত সাবেক ওয়ার্ড কাউন্সিলর লুৎফুন্নেছা দোভাষ বেবী, কাউন্সিলর প্রার্থী পুলক খাস্তগীর ও মোহাম্মদ সালাউদ্দিন এবং প্রশাসক মহোদয়ের একান্ত সচিব মোহাম্মদ আবুল হাসেম।


বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে