চিশতীনগরে বিশ্বনন্দিত কবি ও সুফি মহাসাধক হযরত জালালুদ্দীন রুমীর স্মরণসভা

শনিবার, সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২১,৭:৩২ পূর্বাহ্ণ
0
17

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বিশ্বনন্দিত ফার্সি কবি ও সুফি মহাসাধক হযরত জালালুদ্দীন রুমীর জন্মদিনকে (৩০ সেপ্টেম্বর) সামনে রেখে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলাধীন চিশতীনগর খানকায়ে চিশতীয়ায় গতকাল ২৪শে সেপ্টেম্বর তারিখে এক বর্ণাঢ্য স্মরণসভা অনুষ্ঠিত হয়।

পীরজাদা প্রকৌশলী সৈয়দ গোলাম মুরসালিনের সার্বিক পরিচালনায় আয়োজিত এই স্মরণসভায় দেশব্যাপী রচনা প্রতিযোগিতা আহ্বান করা হয়। হযরত জালালুদ্দীন রুমীর জ্যোতির্ময় জীবনালেখ্য ও বৈশিষ্ট বিষয়ে আহ্বানকৃত এ প্রতিযোগিতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়, দিনাজপুর সরকারী কলেজ, ঢাকার লালমাটিয়া মহিলা কলেজ এবং শরীয়তপুরের বিভিন্ন কলেজের ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষক অংশগ্রহণ করেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মাসী বিভাগের ৩য় বর্ষের ছাত্রী তানজিলা আক্তার প্রথম, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের মাস্টার্স পরীক্ষার্থী আবদুল্লাহ মুহাম্মদ ইকবাল দ্বিতীয় এবং দিনাজপুর সরকারী কলেজের অর্থনীতিতে মাস্টার্সের ছাত্রী আরিফা খাতুন রুবি এবং পন্ডিতসার টি এম গিয়াসউদ্দীন মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী জেবা তাসনিয়া মনিকা যৌথভাবে তৃতীয় স্থান অধিকার করেন।

পন্ডিতসার টি এম গিয়াসউদ্দীন মহাবিদ্যালয়ের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী লাবন্য ৪র্থ স্থান এবং করকারী পূর্বমাদারিপুর কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী সুমাইয়া ৫ম স্থান অধিকার করেন।

১ম থেকে ৫ম স্থান অধিকারকারীগণ অবস্থান অনুযায়ী পুরস্কার লাভ করেন। প্রতিযোগীতায় অংশগ্রহণকারী বাকী ১২ জনকে শুভেচ্ছা উপহার হিসেবে ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে রুমীর বাংলায় অনূদিত কবিতা আবৃত্তি করেন ঢাকার ঋদ্বস্বর আবৃত্তি একাডেমির ছাত্রী সারিকা আহমেদ মৃদুলা এবং সরকারি কিশোর কিশোরী ক্লাব স্থাপন প্রকল্পের আবৃত্তি প্রশিক্ষক আবদুল্লাহ আল মাসুদ।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রফেসর ড. আসরারুল হক চিশতী, চেয়ারম্যান, ইসলামের ইতিহাস বিভাগ, সরকারি এম এম কলেজ, টাঙ্গাইল এবং বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাক্তন সংসদ সদস্য এডভোকেট নাভানা আক্তার ও ইরানের আল-মোস্তফা সাঃ আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র জনাব আবু সালেহ।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চিশতীনগর খানকায়ের চিশতীয়ার বর্তমান সাজ্জাদানশীন পীরজাদা সৈয়দ গোলাম মোদাসসের মাওলা। বক্তাগণ বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় কবি ও উচ্চস্তরের অলিআল্লাহ হযরত রুমীর জ্যোতিস্নাত জীবনের বিভিন্ন দিক নিয়ে বক্তব্য রাখেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের মাননীয় উপমন্ত্রী জনাব এ কে এম এনামুল হক শামিম এবং জেড এইচ সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. তালুকদার লোকমান হাকিম এর শুভেচ্ছা বাণী পাঠ করেন যথাক্রমে ডা. সৈয়দ গোলাম মোগনী, সহযোগী অধ্যাপক ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এবং জেড এইচ সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ডেপুটি রেজিষ্ট্রার খন্দকার তাহমিনা নিশাদ এলিন।

অনুষ্ঠানে চিশতীনগর কাওয়াল গ্রুপ হযরত রুমী রচিত দুইটি ফার্সি গজল পরিবেশন করেন। শ্রোতাদের মধ্যে গজল দুটির বাংলা উচ্চারণ ও অর্থ সংবলিত পত্র বিতরণ করা হয়।

উপস্থিত অতিথিদের নৈশকালীন আপ্যয়নের মধ্যদিয়ে স্মরণসভার সমাপ্তি ঘটে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে