চট্টগ্রাম বিভাগের পাঁচ শ্রেষ্ঠ জয়িতাকে সম্মাননা প্রদান

বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০২১,৯:৩৮ পূর্বাহ্ণ
0
8

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, আবহমান কাল থেকেই নারীরা শোষণ ও বৈষম্যের স্বীকার হয়ে আসছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানই এদেশে নারীর অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক ক্ষমতায়নের সূচনা করেন। ১৯৬৯ সালে জাতির পিতার নির্দেশনায় মহিলা আওয়ামী লীগ প্রতিষ্ঠিত হয়। দেশ স্বাধীনের পর তিনি নির্যাতিত নারীদের চিকিৎসা ও তাদের কর্মসংস্থানের জন্য প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেন।

          গতকাল ঢাকায় বাংলাদেশ শিশু একাডেমি মিলনায়তন থেকে ভার্চুয়াল মাধ্যমে চট্টগ্রাম বিভাগের শ্রেষ্ঠ জয়িতা সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে  প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

          সম্মাননাপ্রাপ্ত জয়িতারা হলেন, মাত্র দুইশত টাকা নিয়ে ব্যবসা শুরু করা রাঙামাটি পার্বত্য জেলার জয়শ্রী ধর, শিক্ষা ও চাকরি ক্ষেত্রে কুমিল্লার মোছাঃ সুফিয়া আক্তার, সফল জননী ক্যাটেগরিতে চট্টগ্রামের মনোয়ারা বেগম, নির্যাতনের বিভীষিকা মুছে ফেলে নতুন উদ্যমে জীবন শুরু করা লক্ষীপুরের শিরিন আক্তার এবং সমাজ উন্নয়নে অসামান্য অবদান রাখায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার তাসলিমা সুলতানা খানম।

          প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, জয়িতাকে দেশব্যাপী ছড়িয়ে দিতে মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় নারীবান্ধব বিপণীকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করেছে। দেশে আজ ক্ষুদ্র ব্যবসা ও অনলাইনভিত্তিক ই-কমার্সের জয়জয়কার। তার পেছনে রয়েছে জয়িতা কার্যক্রম ও ডিজিটাল বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ অবদান। তথ্যপ্রযুক্তি সুবিধার কারণে নারী উদ্যোক্তারা সহজে ব্যবসা শুরু করতে পারছে। আজ দেশের শতকরা ৮০ ভাগ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করছেন নারী উদ্যোক্তারা।

          চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার এ বি এম আজাদ এনডিসি এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কাজী রওশন আক্তার, জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান চেমন আরা তৈয়ব ও জয়িতা ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আফরোজা খান। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগের অতিরিক্ত ডিআইজি জাকির হোসেন খান, চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক  মোহাম্মদ মমিনুর রহমান-সহ বিভাগীয় পর্যায়ের কর্মকর্তাগণ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে