গ্রন্থাগারিকের সম্মানী বাবদ এককালীন অনুদান প্রদান করা হবে : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

শনিবার, জানুয়ারি ৩০, ২০২১,৩:৩৯ অপরাহ্ণ
0
20

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, সারাদেশে কাগজে-কলমে ১ হাজার ৩৭৯টি বেসরকারি গ্রন্থাগার রয়েছে, যার মধ্যে সক্রিয় গ্রন্থাগারের সংখ্যা আটশোটি। গ্রন্থাগারিকের অভাবে বেশিরভাগ গ্রন্থাগার সুষ্ঠুভাবে ব্যবস্থাপনা ও পরিচালনা করা সম্ভব হচ্ছে না। একজন ছাত্র-ছাত্রীকে গ্রন্থাগারিকের দায়িত্ব প্রদান করে বছরে তার পড়ালেখার জন্য যে পরিমাণ অর্থ ব্যয় হয়, তা হিসাব করে এককালীন অনুদান হিসাবে এসব বেসরকারি গ্রন্থাগারসমূহকে সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় হতে প্রদান করা হবে।

          প্রতিমন্ত্রী গতকাল রাজধানীর বেরাইদ গণপাঠাগারসংলগ্ন পুরান ঈদগাহ মাঠে বাংলাদেশ গ্রন্থসুহৃদ সমিতি ও বেরাইদ গণপাঠাগার আয়োজিত ‘দ্বিতীয় ঢাকা গ্রন্থসুহৃদ/গ্রন্থাগার প্রতিনিধি সম্মেলন’ এ প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

          তিনি বলেন, গ্রন্থাগারের ইতিহাস হাজার বছরের পুরনো। বেরাইদ গণপাঠাগারকে একটি আদর্শ গ্রন্থাগার হিসাবে অভিহিত করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ব্যক্তিগতপর্যায়ে সাধারণত এ ধরণের অসাধারণ উদ্যোগ দেখা যায় না। গ্রন্থাগারটি আর্থিকভাবে যেমন স্বচ্ছল, তেমনি এখানকার বইয়ের মান, সংরক্ষণ, গবেষণা ও প্রকাশনা অনেক উন্নত।

          প্রসঙ্গেক্রমে নিজের কোভিড-১৯ টিকাগ্রহণের অভিজ্ঞতার কথা উল্লেখ করে কে এম খালিদ সবাইকে দ্রুত টিকা গ্রহণের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এর কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। এটি সম্পূর্ণ নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্তি ভ্যাক্সিন। তিনি বিএনপিসহ যারা টিকা নিয়ে বিভ্রান্তি ও অপপ্রচার চালাচ্ছে, তাদেরও দ্রুত টিকাগ্রহণের আহবান জানান।

          বেরাইদ মুসলিম হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক মির্জা লুৎফর রহমান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে