গাজীপুর কালীগঞ্জে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুই ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত

বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৫, ২০২১,১:১৪ অপরাহ্ণ
0
19

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আজহারুল ইসলাম জনি (গাজীপুর) : গাজীপুরের কালীগঞ্জে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুই ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। দুই জনই আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী।

নির্বাচিতরা হলেন, উপজেলার তুমলিয়া ইউনিয়নের আবুবকর মিয়া বাক্কু ও মোক্তারপুর ইউনিয়নে আলমগীর হোসেন।
বুধবার (২৪ মার্চ) রাতে বিষয়টি যৌথভাবে নিশ্চিত করেছেন। পৃথকভাবে দায়িত্বে থাকা দুই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা। কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফারিজা নূর (তুমলিয়া, বক্তারপুর এবং জাঙ্গালিয়া ইউনিয়ন) ও টঙ্গী নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ওমর ফারুক হোসেন (বাহাদুরসাদী, জামালপুর ও মোক্তারপুর ইউনিয়ন)।

এছাড়াও তুমলিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রার্থী বদরুজ্জামান সরকার মোনেন মোক্তারপুর ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য হোসনে আরা এবং জামালপুর ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী ইউপি প্রার্থী শায়লা জামান ইউপি সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন।

জানা গেছে, এ উপজেলায় আগামী ১১ এপ্রিল ছয় ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। আসন্ন এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে তুমলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবুবকর মিয়া বাক্কু এবং জাকের পার্টি মনোনীত মো. মনিরুজ্জামান মনোনয়নপত্র জমা দেন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে (২৪ মার্চ) জাকের পার্টি মনোনীত মনিরুজ্জামান তার মনোনয়ন প্রত্যাহারের আবেদন করেন।
এতে করে তুমলিয়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আর কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আবুবকর মিয়া বাক্কু চেয়ারম্যান হিসেবে নির্বাচিত হন।

এছাড়াও ওই ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য প্রার্থী বদরুজ্জামান সরকার মোনেন ছাড়া আর কোনো প্রার্থী না থাকায় তিনিও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন।

এদিকে মোক্তারপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত আলমগীর হোসেন এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত মো. আব্দুল ছালাম প্রধান মনোনয়নপত্র জমা দেন। মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিনে বুধবার (২৪ মার্চ) ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত প্রার্থী তার মনোনয়ন প্রত্যাহার করেন।
এতে করে মোক্তারপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী না থাকায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আলমগীর হোসেন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

এছাড়াও ওই ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত নারী সদস্য প্রার্থী হোসনে আরা ছাড়া আর কোনো প্রার্থী না থাকায় তিনিও বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংরক্ষি আসনে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন।

অন্যদিকে জামালপুর ইউনিয়নের ১, ২ ও ৩ নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য প্রার্থী শায়লা জামান ছাড়া আর কোনো প্রার্থী না থাকায় তিনি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় সংরক্ষিত আসনে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে