ক্রেতাদের স্বার্থ রক্ষায় ডেভেলপার কোম্পানিকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে : বাণিজ্যমন্ত্রী

শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৪, ২০২১,১:০০ অপরাহ্ণ
0
23

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, মানুষকে প্রতারিত করবেন না। মানুষ মাথাগুঁজার একটু ঠাঁই খুঁজে পেতে জীবনের সকল সঞ্চয় দিয়ে একটি ফ্ল্যাট ক্রয় করেন। প্রতারিত হলে আর কিছুই থাকে না। ক্রেতাদের স্বার্থ রক্ষায় ডেভেলপার কোম্পানিগুলোকে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। যারা ঢাকাসহ দেশের বড় শহরগুলোতে বাস করেন, তারা সবাই একটি নিজস্ব আবাসস্থল প্রত্যাশা করেন। সরকার আবাসন খাতের কোম্পানিগুলোকে প্রয়োজনীয় সবধরনের সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছে। বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, দেশের আবাসন খাত অনেক এগিয়ে গেছে। দেশের উন্নয়নের সাথে সাথে আবাসন খাতেরও উন্নয়ন হয়েছে। এ শিল্প খাত দিন দিন বড় হচ্ছে। বিপুল জনগোষ্ঠী এ খাতে কাজ করছে। সরকার পরিকল্পিতভাবে ঢাকাসহ বড় বড় শহরগুলো গড়ে তোলার জন্য আন্তরিকতার সাথে কাজ করছে। এজন্য আবাসন খাতের ব্যবসায়ীদেরও সহযোগিতা প্রয়োজন।

বাণিজ্যমন্ত্রী গতকাল ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের (বিআইসিসি) হল অভ্ ফেমে রিয়েল এস্টেট এন্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অভ্ বাংলাদেশ (রিহ্যাব) আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী ‘রিহ্যাব ফেয়ার-২০২১’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তোলার জন্য দিনরাত কাজ করে যাচ্ছেন। বাঙালি জাতির মুক্তির জন্য বঙ্গবন্ধু জীবনের শ্রেষ্ঠ সময়গুলো জেলে কাটিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু দু’টি উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে সারাজীবন সংগ্রাম করে গেছেন। একটি দেশের স্বাধীনতা, আর একটি বাঙালি জাতির অর্থনৈতিক মুক্তি। তিনি আমাদের স্বাধীনতা দিয়ে গেছেন। আজ তাঁরই সুযোগ্য কন্যা বাংলাদেশের অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য কাজ করছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। যে পাকিস্তান আমাদের সর্বস্ব লুট করে নিয়ে গেছে, সেই পাকিস্তান আজ বাংলাদেশ থেকে প্রায় ৫০ শতাংশ পিছিয়ে পড়েছে। স্বাধীনতাবিরোধী গোষ্ঠী বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যা করে স্বাধীনতার জয় বাংলা স্লোগানকে বাংলাদেশ জিন্দাবাদ করার চেষ্টা করে ব্যার্থ হয়েছে। আজ বাংলাদেশ নিজের পায়ে দাড়িয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা ২০৪১ সালে বাংলাদেশ বিশ্বের মধ্যে উন্নত দেশ হবে। এজন্য আমাদের সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দায়িত্বশীল ভূমিকা রাখতে হবে।

 রিয়েল এস্টেট এন্ড হাউজিং এসোসিয়েশন অভ্ বাংলাদেশ (রিহ্যাব) এর প্রেসিডেন্ট আলমগীর শামসুল আলামীন (কাজল) এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন গৃহায়ন ও গণপূর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ শহিদ উল্লাহ খন্দকার এবং এফবিসিসিআই এর প্রেসিডেন্ট মোঃ জসিম উদ্দিন। গেষ্ট অভ্ অনার হিসেবে বক্তব্য রাখেন রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এ বি এম আমীন উল্ল্যাহ নূরী। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রিহ্যাবের সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট ইনথেখাবুল হামিদ, রিহ্যাবের ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ফেয়ার স্ট্যান্ডিং কমিটির কো-চেয়ারম্যান কামাল মাহমুদ এবং রিহ্যাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট (ফাইন্যান্স) এবং ফেয়ার স্ট্যান্ডিং কমিটির  চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মোহাম্মদ সোহেল রানা।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে