কলাপাড়ায় চাল আত্মসাতের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান গ্রেপ্তার

বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৮, ২০১৯,৪:২২ পূর্বাহ্ণ
0
17

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

হতদরিদ্রদের জন্য বরাদ্দকৃত ঈদুল আজহার বিশেষ ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার চাকামইয়া ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. হুমায়ুন কবির কেরামতকে। কলাপাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. মুনিবুর রহমান এবং  উপজেলা সহকারী কশিনার (ভূমি) অনুপ দাসের নেতৃত্বে  অভিযান পরিচালনা করে একটি বিশেষ পুলিশ দল। গতকাল বুধবার দুপুরে ওই ইউনিয়নের পূর্ব চাকামইয়া গ্রামের দ্বিত্তা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সংলগ্ন জালাল চাকরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে  উদ্ধার করা হয় ৩০ কেজি চালের ১৪ বস্তা এবং ৫০ কেজি চালের চারটি বস্তায় প্রায় ৫৫০ কেজি ভিজিএফ চাল। এ ছাড়া জালাল চাকরের বাড়ির পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয় আরো আটটি ভিজিএফের সরকারি খালি বস্তা।

ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানকে এ ঘটনায় কলাপাড়া থানায় প্রধান আসামি করা হয়। এ ছাড়া মামলার অন্য আসামিরা হচ্ছে স্থানীয় মেম্বার মো. জাকির হোসেন গাজী, মো. জালাল চাকর, জামাল হাওলাদার এবং গিয়াস মাতবর এই পাঁচজনের বিরুদ্ধে কলাপাড়া উপজেলা প্রকল্প কর্মকর্তা তপন কুমার ঘোষ বাদী হয়ে বুধবার সন্ধ্যায় একটি মামলা দায়ের করেন।এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্ত মো. মুনিবুর রহমান বলেন, ‘আমরা চাকামইয়া ইউনিয়নে অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করেছি ভিজিএফের আত্মসাৎ করা চাল ।’

এদিকে ঈদুল আজহা উপলক্ষে দরিদ্রদের মধ্যে ভিজিএফের চাল ১৫ কেজির পরিবর্তে ১০ থেকে ১২ কেজি বিতরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। গতকাল বুধবার সকাল থেকে বাউফল সদর ইউনিয়নে সুবিধাভোগী তিন হাজার ৪৪০ জনকে ভিজিএফের ওই চাল বিতরণের কার্যক্রম শুরু হয়।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, গতকাল সকাল ১০টায় পুরাতন বাউফল ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ের সামনে সারিবদ্ধভাবে দাঁড়িয়ে  চাল গ্রহণ করছে নারী-পুরুষ। চাল নিয়ে বাড়ি ফেরার পথে অনেকে তা পাল্লায় ওজন দিয়ে দেখেন ১৫ কেজি নয় কারো ব্যাগের চালই । বিলবিলাস গ্রামের সালেহা বেগম (৫৫) চাল নিয়ে যাচ্ছেন।বাউফল ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. জসীম উদ্দীন খান বলেন, ‘প্রত্যেককেচাল দেওয়া হচ্ছে সাড়ে ১৩ থেকে ১৪ কেজি করে । কিছু চালের ঘাটতি হয় গোডাউন থেকে আনার সময় ।’

অন্যদিকে পটুয়াখালীর মির্জাগঞ্জ উপজেলায় ভিজিএফের চাল নিয়ে ফেরার পথে মৃত্যু হয়েছে আরোজা বেগম (৫০) নামে একজনের। গতকাল দুপুরে উপজেলার মাধবখালী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে আরোজা বেগম লাইনে দাঁড়িয়ে চাল গ্রহণের কিছুক্ষণ পরই সে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাঁকে দ্রুত নিয়ে যান মির্জাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে । সেখানে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন কর্তব্যরত চিকিৎসক ।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে