করোনা প্রতিরোধে করনীয় নিয়ে চসিক মেয়র ও কাউন্সিলরদের বৈঠক

সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০,১:১০ অপরাহ্ণ
0
24

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কাউন্সিলরদেরকে নিবিড়ভাবে দায়িত্ব পালন করার আহ্বান জানিয়েছেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীন। আজ সোমবার দুপুরে নগরীর টাইগারপাসস্থ চসিক নগর ভবনের কনফারেন্স হলে নগরীর বিভিন্ন ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলরদের সাথে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে করণীয় নিয়ে পৃথক পৃথক বৈঠকে সিটি মেয়র এই আহবান জানান।

তিনি যে কোন পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত না হয়ে সবাইকে সতর্কতা ও সচেতন হতে হবে। লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে করোনা ভাইরাসকে পুঁজি করে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী ও মুনাফালোভী সিন্ডিকেট চালসহ নিত্য প্রয়োজনীয় ভোগ্যপণ্যের দাম এবং করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সরঞ্জাম ও প্রতিষেধকের আকাশ ছোঁয়া দাম বাড়িয়ে হাতিয়ে নিয়ে ভোক্তা ও ক্রেতা সাধারনের প্রতি অমানবিক আচরণ করছে। তাদের এই নির্লজ্জ মনোবৃত্তির বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনতে হবে।

বৈঠকে সিটি মেয়র বলেন, করোনা ভাইরাস বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এরমধ্যে বাংলাদেশেও এসেছে। যেহেতু করোনা ভাইরাসের এখন পর্যন্ত কোন প্রতিষেধক তৈরি হয়নি,তাই এটি প্রতিরোধে জনসচেতনার বিকল্প নেই। জনসচেতনতা সৃষ্টিতে ইতোমধ্যে মাইকিং, বিজ্ঞপ্তি প্রচার, লিফলেট বিতরণ, জীবাণুনাশক পানি ছিটানো, কন্ট্রোল রুম স্থাপন, জরুরী প্রয়োজনে চসিকের হাসপাতাল প্রস্তুতরাখা সহ বিভিন্ন সচেতনতা সৃষ্টির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আমি নগরবাসীসহ সবাইকে করোনা ভাইরাসে আতঙ্কিত না হয়ে সচেতন ও সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। এ সময় মেয়র করোনার ব্যাপারে মানুষকে সচেতন করতে কাউন্সিলরদের দিক-নির্দেশনা দিয়ে বলেন, এখন দেশের এই মহামারী অবস্থায় আপনারা যার যার অবস্থান থেকে নগরবাসীর সেবায় নিজেদের নিয়োজিত রাখুন।

মেয়র বলেন, সরকারের আহবানে সাড়া দিয়ে যারা আপনাদের এলাকায় হোম করেন্টাইনে রয়েছেন তাদের বিষয়ে আপনারা সার্বক্ষণিক খোজ খবর রাখবেন। তাদের প্রয়োজন মেটাতে আপনাদের সবটুকু উজাড় করে দিতে হবে। তিনি বলেন দেশের এই মহামারিতে কিছু অসাধু ব্যক্তি নানা রকম গুজব ও বিভ্রান্ত তথ্য দিয়ে জনগণকে উস্কে দেয়ার চেষ্টা করছে। এইরকম কিছু পরিলক্ষিত হলে সাথে সাথে আইন শৃংখলা রক্ষাকারীদের নজরে আনতে হবে। তিনি বলেন, এরই মধ্যে সরকার চসিককে চাল বরাদ্ধ দিয়েছেন। যা আপনাদের মাধ্যমে বিতরণ করা হচ্ছে। এই ভোগ্যপন্য সমূহ যাতে সঠিক ও অস্বচ্ছল মানুষের হাতে যায় তা নিশ্চিত করতে হবে। তিনি বলেন, দেশের সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য ৩টি সেল রয়েছে। এই সেলগুলো কে কি কাজ করছে তা সার্বক্ষণিকভাবে মনিটরিং করছে। যা আগামীতে অনেকের কর্মফল নির্ধারণ করা হবে। এই করোনা ভাইরাসের কারনে নিন্মজীবি শ্রেনীর মানুষের দু:খ লাঘবে বিত্তশালীদেরকে এগিয়ে আসারও উদাত্ত আহবান জানান মেয়র।

তিনি বলেন, আমাদের দেশে এখনও অনেক প্রবাসী আসছেন। তাঁরা হোম কোয়ারেন্টাইন পালন করছে কিনা তা কাউন্সিলরদেরকে খোঁজ খবর নেয়ার তাগাদা দেন মেয়র। কারণ বিদেশ ফেরত প্রত্যেক প্রবাসীর জন্য হোম কোয়ারাইন্টান বাধ্যতামূলক। যারা এই হোম কোয়ারেন্টাইন পালন করবে না তাদের ব্যাপারে প্রশাসনকে অবহিত করার পরামর্শ দেন মেয়র। তিনি বলেন, এলআইইউপিসি এর উদ্যোগে নগরীর ২৪ টি ওয়ার্ডের অসচ্ছল ব্যক্তিদের অনুদান দিয়ে আসছে। চসিকের এই প্রকল্পটি নগরীর ২৪ টি ওয়ার্ডের ৩৮৪ টি স্পটে হাত ধোয়ার পয়েন্ট স্থাপন করবে। এই পয়েন্টগুলোতে থাকবে প্রতিদিন ২টি করে সাবান, পানির ট্যাংক ও বালতি। এছাড়া প্রকল্পের আওতায় প্রায় ৭৫ হাজার উপকারভোগীকে সাবান ও হ্যান্ড স্যানিটাইটাইজার দেয়া হবে।

সভায় মেয়র নগরবাসীর যোগাযোগের সুবিধার্থে সিটি কর্পোরেশনের হট লাইন পুনরায় চালু করনের কথা উল্লেখ করে বলেন এই হট লাইন নাম্বারটি আজ থেকে ১৬১০৪ সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে। এছাড়া দামপাড়াস্থ কন্ট্রোল রুম এর নাম্বার ০৩১-৬৩০৭৩৯ ও ০৩১-৬৩৩৬৪৯ এবং সর্দি,কাশি ও জ্বর সংক্রান্ত বিষয়ে চিকিৎসকের পরামর্শের জন্য ৬৩৪৫৮৪ নাম্বারে যোগাযোগ করার অনুরোধ জানান। এসময় প্যানেল মেয়র, ওয়ার্ড কাউন্সিলর, সংরক্ষিাত ওয়ার্ড কাউন্সিলর চসিক প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামসুদ্দোহা,সচিব মো. আবু শাহেদ চৌধুরী সহ চসিক উর্দ্ধতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে