করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ও মৃত্যুকে ট্রাম্প প্রশাসনকে নিবৃত্ত করে নাই : মেনন

শনিবার, জুন ১৩, ২০২০,৯:৩০ পূর্বাহ্ণ
0
11

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি বলেছেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের বর্ণবাদের বিরুদ্ধে এই লড়াই ইতিমধ্যে মার্কিন প্রশাসন ফাটল সৃষ্টি করেছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সেনা মোতায়েনের হুমকি খোদ পেন্টাগন বিরোধীতা করেছে, বিরোধীতা করেছে ট্রাম্প প্রশাসনের সাবেক প্রতিরক্ষা মন্ত্রী। যে ইভানজেনিকাল গোষ্ঠীর সমর্থনের জন্য ট্রাম্প গীর্জার সামনে বাইবেল হাতে দাঁড়িয়ে ছবি তুলতে সমবেত মানুষের উপর টিয়ারগ্যাস ছুড়েছিল, সেই গীর্জার প্রধান সে কাজকে অসমর্থন করে নাই কেবল, তার নিন্দা করেছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজ্যে রাজ্যে গভর্ণর, মেয়রগণ ট্রাম্পের আদেশ উপেক্ষা করে মার্কিন জনগণের আন্দোলনের সাথে সংহতি জানিয়েছেন।

কমরেড মেনন ১৪ দলের সমন্বয়ক জাতীয় নেতা মোহাম্মদ নাসিমের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন।

কমরেড মেনন বলেন, মার্কিন বর্ণবাদী ব্যবস্থার ভিত অত্যন্ত গভীরে। বারবার আঘাতেও একে বিশেষ টলানো যায়নি। ষাটের দশকের আন্দোলনে সেগ্রেগেশন প্রথা বাতিল হলেও এখনও এক বড় অংশের মানুষ ঐ ঘৃণাকে মনে পুষে রেখেছে। আর নির্বাচনে বিজয়ের জন্য ট্রাম্প এই শ্বেতস্রেষ্টতা পরিকল্পিতভাবে উস্কে দিচ্ছে।

মেনন আরও বলেন, বাংলাদেশের সংবিধানের রাষ্ট্রীয় মূলনীতিতে বর্ণবাদবিরোধীতার অঙ্গীকার রয়েছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য বাংলাদেশ সরকার ও তার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে সামান্যতম কোন মন্তব্য করে নাই। সাম্প্রতিক অতীতে ফিলিস্তিনে ইহুদীবাদীদের গণহত্যা ও ট্রাম্প প্রশাসনের প্যালেস্টাইনকে টুকরো টুকরো করে ইসরাইলী স্বার্থরক্ষায় প্রণীত শান্তি প্রস্তাবকেও নিন্দা জানাতে ব্যর্থ হয়েছে বাংলাদেশ সরকার। দেশের গণতান্ত্রিক শক্তিসমূহ অতীতে যেভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বর্ণবাদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছে তাও বর্তমানে অনুপস্থিত। করোনা সংক্রমণ এ পথে বাধা হলেও এ ধরনের নিরবতা বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ঐতিহ্যের পরিপন্থী।

আজ দুপুরে যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদী হামলার প্রতিবাদে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি ঢাকা মহানগরের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন পার্টির ঢাকা মহানগরের সভাপতি কমরেড আবুল হোসাইন। সমাবেশে প্রধান অতিথির হিসেবে ভিডিও মাধ্যামে বক্তব্য রাখেন পার্টির সভাপতি কমরেড রাশেদ খান মেনন এমপি। আরও বক্তব্য রাখেন পার্টির পলিটব্যুরো সদস্য কমরেড কামরূল আহসান, কমরেড এ্যাড, মুস্তফা লুৎফুল্লাহ এমপি, ঢাকা মহানগর সাধারণ সম্পাদক কমরেড কিশোর রায়, কমরেড সাদাকাত হোসেন খান বাবুল।

উপস্থিত ছিলেন পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা কমরেড মোস্তফা আলমগীর রতন, কমরেড শাহানা ফেরদৌসী লাকী, কমরেড মুর্শিদা আখতার নাহার, কমরেড মোতাসিম বিল্লাহ সানী, মহানগর নেতা কমরেড জাহাঙ্গীর আলম ফজলু, কমরেড আনোয়ারুল ইসলাম টিপু প্রমুখ।

এই অবস্থায় বাংলাদেশের মানুষের হয়ে বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি এই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও শহীদ মিনারের সমাবেশ থেকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বর্ণবাদবিরোধী সাম্প্রতিক সংগ্রামের প্রতি সংহতি ঘোষণা করছে। সমাবেশ একই সাথে বাংলাদেশের সংবিধানের নীতি অনুসারে বাংলাদেশ সরকারকে জর্জ ফ্লয়েডের হত্যার নিন্দা ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বর্ণবাদী নীতির নিন্দা জানাতে আহ্বান জানাচ্ছে।

সমাবেশ দেশের সকল গণতান্ত্রিক শক্তি, বুদ্ধিজীবী, লেখক, সাহিত্যিক, সাংবাদিকদের স্ব স্ব ক্ষেত্রে এবং ঐক্যবদ্ধভাবে যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের এই সংগ্রামের প্রতি এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে