করোনাকালের মানবিক যোদ্ধা লক্ষ্মীপুরের কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ

মঙ্গলবার, মে ১৯, ২০২০,৩:২৮ অপরাহ্ণ
0
43

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

করোনা নামের এক অদৃশ্য ঘাতকের বিরুদ্ধে লড়াই করছে সমগ্র পৃথিবীর শত কোটি মানুষ। কোভিড-১৯ বা করোনা নামের এই অদৃশ্য ঘাতকের ছোবলে ১৮৮ টি দেশের ৪৮ লাখ ১২ হাজারেরও বেশি মানুষ আক্রান্ত এবং মারা গেছে ৩ লাখ ১৮ হাজারের বেশি মানুষ। গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো করোনা রোগি শনাক্ত হয় এবং ১৮ মার্চ প্রথমবারের মতো মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। বলতে গেলে তখন থেকেই কোভিড-১৯ বা করোনার বিরুদ্ধে এক অন্যরকম যুদ্ধে নামে বাংলাদেশ। বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ ও প্রতিষ্ঠান নিজ নিজ অবস্থান থেকে এ যুদ্ধে নিজেদের শামিল করেছে এবং মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছে।

করোনাকালের দুঃসময়ে এমনি একজন মানবিক যোদ্ধা লক্ষ্মীপুরের কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ। শুরু থেকেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দিনরাত মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে অবিরাম সেবামূলক কাজ করে আসছেন সমাজ সেবক ও রাজনীতিবিদ কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ। লক্ষ্মীপুর জেলার রায়পুর উপজেলার পৌর আওয়ামী লীগের আহবায়ক এবং জেলা আওয়ামী লীগের একজন একনিষ্ঠ সদস্য এই মহৎ প্রাণ মানুষটি নিজের ব্যক্তিগত এবং দলীয় সামর্থ উজাড় করে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাসকারী অসুস্থ্য রোগিদের বহনের জন্য ব্যক্তিগত গাড়ীসহ নিজ অর্থায়নে ভাড়া করা বেশ ক’টি গাড়ি সার্বক্ষণিক প্রস্তুত রাখা হয়েছে যাতে একটি মাত্র ফোন কলেই যে কেউ দ্রুতসময়ে চিকিৎসা কেন্দ্রে পৌঁছতে পারে। কোন রকম দান নয় বরং উপহার সামগ্রী হিসেবে লকডাউনে ঘরবন্দী মানুষের দরজায় পৌঁছে যাচ্ছে চাহিদা মতো খাদ্য সামগ্রী এবং অর্থ সহায়তা। সম্প্রীতি লক্ষীপুরের এই করোনা যোদ্ধার একটি মানবিক উদ্যোগ ছিলো কৃষকের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে ধান সংগ্রহে সহায়তা প্রদান।

স্থানীয়া মানুষদের সাথে কথা বলে জানা যায়, করোনার দুর্যোগে শ্রমিক না পেয়ে অনেক চাষীই ধান কাটা নিয়ে বিপাকে ছিলেন এমন সংবাদ পেয়ে কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে সরাসরি কৃষকের সাথে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজে অংশগ্রহণ করেন। কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ এমন মানবিক উদ্যোগে কৃষকদের সাথে ধান সংগ্রহের কাজে সাহায্যের হাত বাড়ান অন্যরাও।

এ ব্যাপারে করোনাকালের মানবিক যোদ্ধা কাজী জামশেদ কবীর বাকী বিল্লাহ’র সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, – যে কোন বিপদ আপদে মানুষ হিসেবে আমাদের সকলেরই কিছু দায়িত্ব থাকে যা তাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে পালন করতে হয়। দেশ আজ একটা ভয়াবহ দুঃসময় পার করছে। এসময় মানুষের পাশে না থাকাটা স্বার্থপরতা যা আমার দ্বারা মোটেও সম্ভব না। এখানে আমি যা করছি তা মানুষের জন্য এবং মানুষের সার্বিক কল্যাণে। আশা করি আমার এ উদ্যোগে দেশ ও লক্ষ্মীপুরের মানুষ উপকৃত হবে এবং অন্যরাও নিজ নিজ উদ্যোগে মানবিক কাজে উৎসাহিত হবেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে