কভিড-১৯ প্রতিরোধে প্রচারণা চালাচ্ছে কমিউনিটি রেডিওসমূহ

সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০,১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ
0
11

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

গ্রামীণ জনগোষ্ঠীকে সচেতন করতে ১৬টি কমিউনিটি রেডিও একযোগে বিরতিহীনভাবে করোনা ভাইরাস  বিষয়ে সম্প্রচার করছে বিশেষ অনুষ্ঠান। কভিড-১৯ মোকাবিলায় জাতীয় প্রস্তুতি পরিকল্পনা এবং এ বিষয়ে গঠিত জাতীয় সমন্বয় কমিটির সাথে সমন্বয় করে কৌশলগত প্রস্তুতি ও এ দুর্যোগ মোকাবেলায় করণীয় সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করে অনুষ্ঠান নির্মাণের দিক-নির্দেশনাসহ সম্প্রচাররত কমিউনিটি রেডিও স্টেশনগুলোতে প্রেরণ করছে। এসব তথ্যের ওপর ভিত্তি করে কমিউনিটি রেডিওগুলো করোনা ভাইরাস প্রতিরোধমূলক রেডিও অনুষ্ঠান নির্মাণ ও সম্প্রচার করছে।

          করোনা ভাইরাস নিয়ে কমিউনিটি রেডিওগুলো সম্মিলিতভাবে প্রতিদিন অনুষ্ঠান সম্প্রচার করছে। গ্রামীণ জনগণকে করোনা ভাইরাসের মহামারী সম্পর্কে অবহিত করা নাগরিক সমাজের সংগঠনসমূহ, সরকার, স্বাস্থ্যকর্মী এবং জনগণকে উদ্বুদ্ধ করার জন্য সমন্বিত উদ্যোগ গ্রহণ, জনগণের জীবন-জীবিকা স্বাভাবিক রাখা এবং স্থানীয় বাজার, নাগরিক সমাজের সংগঠন এবং সরকারকে পারস্পরিক সহযোগিতার জন্য মবিলাইজ করা।

          কমিউনিটি রেডিওগুলোর সম্প্রচারিত অনুষ্ঠানের মধ্যে উল্লেখযোগ্য বিষয়বস্তু হলো- করোনা ভাইরাস কি? কেন ছড়ায়, কিভাবে ছড়ায়, রোগীর লক্ষণ, চিকিৎসা এবং প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে জনসাধারণকে তথ্য প্রদান করা। পাবলিক সার্ভিস অ্যানাউন্সমেন্ট (পিএসএ), কথিকা, স্পট, জিঙ্গেল, নাটিকা, আলোচনা, বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ ও সাক্ষাৎকার ইত্যাদি। এ সব অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সংক্রমণ কিভাবে ছড়ায়, সংক্রমণের সাধারণ লক্ষণসমূহ এবং প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে নানাবিধ তথ্য ও পরামর্শ প্রদান করা।

          কমিউনিটি রেডিওগুলোতে নিয়মিত করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কি কি করণীয় সে সংক্রান্ত অনুষ্ঠান সম্প্রচারের ফলে গ্রামীণ জনপদে যে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছিলো তা কমতে শুরু করেছে, শ্রোতারা ফোন কল এবং ক্ষুদে বার্তা প্রেরণের মাধ্যমে সরাসরি সম্প্রচারিত বিভিন্ন অনুষ্ঠানের সময় বিভিন্ন তথ্য সম্পর্কে প্রশ্ন করে উত্তর জানতে পারছে, পাশাপাশি কভিড-১৯: ফোকালরা স্থানীয় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির বিভিন্ন তথ্য ও নির্দেশনা সংগ্রহ করে সম্প্রচার করছে, যার ফলে একটি সরকারি ও বেসরকারি সংগঠনগুলোর সাথে একটি জোরালো সমন্বয় গড়ে উঠেছে। স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে না আসা পর্যন্ত এই সচেতনতামূলক সম্প্রচার কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।

          ১৬টি কমিউনিটি রেডিও হলো রেডিও পদ্মা ৯৯.২এফএম, রেডিও নলতা ৯৯.২এফএম, লোকবেতার ৯৯.২এফএম, রেডিও পল্লীকন্ঠ ৯৯.২এফএম, রেডিও সাগরগিরি ৯৯.২এফএম, রেডিও মহানন্দা ৯৮.৮এফএম, রেডিও মুক্তি ৯৯.২এফএম, রেডিও চিলমারী ৯৯.২এফএম, রেডিও ঝিনুক ৯৯.২এফএম, কৃষি রেডিও ৯৮.৮এফএম, রেডিও নাফ ৯৯.২এফএম, রেডিও বিক্রমপুর ৯৯.২এফএম, রেডিও মেঘনা ৯৯.০ এফএম , রেডিও সাগরদ্বীপ ৯৯.২এফএম, রেডিও সারাবেলা ৯৮.৮এফএম,  রেডিও বড়াল ৯৯.০ এফএম।           বিএনএনআরসি ৫ সদস্যবিশিষ্ট একটি মনিটরিং টিম গঠন করেছে। এই টিমের কাজ হলো পুরো পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে ১৬ টি কমিউনিটি রেডিও স্টেশনকে পরামর্শ ও প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করা। এই কমিটির সমন্বয়কারী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মার্ক মানস সাহা, জরুরি ও প্রয়োজনীয় তথ্যের জন্য মোবাইল নং- ০১৭১২১৪৪১৮০ এবং সধৎশ@নহহৎপ.হবঃ ঠিকানায় যোগাযোগ করা যেতে পারে মর্মে জানানো হয়েছে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে