ইলিশ বাঙালি সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ : নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী

রবিবার, ডিসেম্বর ২৭, ২০২০,৯:২১ পূর্বাহ্ণ
0
25

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহ্‌মুদ চৌধুরী বলেছেন, ইলিশ কক্সবাজারকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে। ইলিশ বাঙালি সংস্কৃতির অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে অনেক আগেই সুনাম কুড়িয়েছে। ইলিশ মাছের উৎপাদন বর্তমানে পাঁচ লাখ টনেরও বেশি। ইলিশ উৎপাদন এবং রপ্তানিতে বিশ্বের মধ্যে প্রথম বাংলাদেশ। বিশ্বে মোট ইলিশের প্রায় ৮৫ শতাংশই উৎপাদিত হয় বাংলাদেশে। মৎস্য খাতে সম্ভাবনা আরও বাড়বে কারণ বাংলাদেশের রয়েছে অপার সম্ভাবনাময় সমুদ্রসম্পদ।

          প্রতিমন্ত্রী গতকাল কক্সবাজার সাংস্কৃতিক কেন্দ্রে বেসরকারি সেবা সংস্থা ‘পদক্ষেপ বাংলাদেশ’ আয়োজিত আন্তর্জাতিক ইলিশ, পর্যটন ও উন্নয়ন উৎসব-২০২০ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে  এসব কথা বলেন।

          প্রতিমন্ত্রী বলেন, করোনাকালে বিপর্যয়ের মাঝেও সুখবর নিয়ে এসেছে আমাদের দেশের মৎস্য খাত। বিশ্বে মাছ উৎপাদন বৃদ্ধিতে ২০১৯ সালে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে বাংলাদেশ। গত বছর রেকর্ড পরিমাণ মাছ উৎপাদন হয়েছে দেশে। স্বাদু পানির মাছ উৎপাদনে তৃতীয় স্থান ধরে রেখেছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশে কৃতিত্ব উঠে এসেছে ইলিশ আর দেশি মাছ চাষে।

          খালিদ মাহ্‌মুদ চৌধুরী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবর্ষ উদযাপনের লক্ষ্যে সরকার একটি পর্যটনবান্ধব রাষ্ট্র গড়ে তুলতে সরকার নানা কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। জন্মশতবর্ষ উদযাপনে এবারের স্লোগান হচ্ছে, ‘মুজিব বর্ষের আকর্ষণ, বাংলাদেশের পর্যটন’। পর্যটনের মাধ্যমে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়ন সম্ভব।  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পর্যটন খাতে উদ্যোক্তা হওয়ার অবারিত সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছেন। যার ফলে বিপুল সংখ্যক যুবক এখন পর্যটন শিল্পে উদ্যোক্তা হিসেবে অসামান্য অবদান রেখে চলেছেন।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে