আবারও বাংলাদেশি কর্মী নেওয়া শুরু করেছে দক্ষিণ কোরিয়া

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারি ৬, ২০২২,১০:০৪ পূর্বাহ্ণ
0
9

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

দক্ষিণ কোরিয়া বাংলাদেশ থেকে আবারও কর্মী নেওয়া শুরু করেছে। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কোরিয়ান এয়ারের চার্টার্ড ফ্লাইট যোগে ৯২ জন বাংলাদেশি কর্মী কোরিয়ার উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন। এটি এ বছর প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষিণ কোরিয়ার উদ্দেশ্যে প্রথম ব্যাচ।

ঢাকায় দক্ষিণ কোরীয় দূতাবাস জানায়, দক্ষিণ কোরিয়ার সরকার কভিড-১৯ মহামারির কারণে ২০২০ সালের মার্চ মাসে বিদেশি কর্মী নেওয়া স্থগিত করে। গত মাস থেকে দক্ষিণ কোরিয়া আবারও বিদেশি কর্মী নেওয়া শুরু করে। এরপর বুধবার পর্যন্ত মোট ২০৩ জন বাংলাদেশি প্রবাসী কর্মী কোরিয়ায় গেছেন। গত ডিসেম্বরে ১১১ জন বাংলাদেশি কর্মী কোরিয়ায় গেছেন। বুধবার যাওয়া ৯২ জন কর্মীর মধ্যে ৪৪ জন নতুন নিয়োগপ্রাপ্ত। বাকিরা পুনঃপ্রবেশ কর্মী। কোরিয়া ইপিএস (এমপ্লয়মেন্ট পারমিট সিস্টেম) প্রোগ্রামের মাধ্যমে বাংলাদেশসহ ১৬টি দেশ থেকে মাঝারি ও নিম্ন-দক্ষ বিদেশি কর্মী নিচ্ছে। 

রাষ্ট্রদূত লি জ্যাং-গুণ বলেন, বাংলাদেশের ইপিএস কর্মীরা কোরিয়া-বাংলাদেশ সম্পর্কের ক্ষেত্রে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন। শুধু বাংলাদেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নই নয়, কোরিয়ার শিল্পে শ্রমশক্তি সরবরাহেও তারা অবদান রেখেছেন। 

কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের কর্মী যাওয়া পুনঃপ্রবর্তনকে স্বাগত জানান। তিনি আশা করেন, কোরিয়া আগামী বছরগুলোতে বাংলাদেশ থেকে আরো বেশি ইপিএস কর্মীকে স্থান দিতে সক্ষম হবে। এ পর্যন্ত ইপিএস পদ্ধতিতে ২০ হাজারের বেশি বাংলাদেশি কর্মীকে কোরিয়ায় পাঠানো হয়েছে।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে