আখমাড়াই স্থগিতকৃত এলাকার আখ কিনছে সরকার

মঙ্গলবার, জানুয়ারি ৫, ২০২১,১২:০৮ অপরাহ্ণ
0
5

[ + ফন্ট সাইজ বড় করুন ] /[ - ফন্ট সাইজ ছোট করুন ]

আখমাড়াই স্থগিতকৃত ৬টি চিনিকলের ক্যাচমেন্ট এরিয়ায় উৎপাদিত আখ চাষিরা সরকারের নিকট শান্তিপূর্ণ পরিবেশে বিক্রয় করছে। বর্তমানে আখমাড়াই কার্যক্রম চলমান থাকায় ক্রয়কৃত এসব আখ নিকটবর্তী চিনিকলে সরবরাহ করা হচ্ছে। 

গতকাল বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের (বিএসএফআইসি) সার্বিক বিষয় পর্যালোচনা সংক্রান্ত এক ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় এ তথ্য জানানো হয়। শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ভার্চুয়াল সভায় শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার সংশ্লিষ্ট এলাকার সংসদ সদস্যগণ, প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন।

সভায় শিল্পমন্ত্রী বলেন, রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকলগুলো লাভজনক করতে বহুমুখী পণ্য উৎপাদনের বিষয়টি সরকার সক্রিয়ভাবে বিবেচনা করছে। আধুনিক প্রযুক্তির মাধ্যমে চিনিকলগুলোর উৎপাদনশীলতা বাড়াতে  বিদেশি বিনিয়োগের প্রস্তাব বিবেচনাধীন রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশনায় চিনি কলগুলোর যে আধুনিকায়ন হচ্ছে, সেই ধারাকে সমন্বিত রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান জানান তিনি। শিল্পমন্ত্রী, আখ ক্রয় ও সরবরাহ কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে দ্রুততর করার জন্য চিনিকলগুলোর ব্যবস্থাপনা পরিচালকদের নির্দেশনা প্রদান করেন। 

শিল্প প্রতিমন্ত্রী যোগ্য ও দক্ষ কর্মকর্তাকে চিনিকলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হিসেবে নিয়োগ দেয়ার ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন, আখ ক্রয় যাতে সঠিক হয়, সেটি নিশ্চিত করতে হবে। প্রতিমন্ত্রী রাষ্ট্রায়ত্ত চিনিকলগুলোর আর্থিক পরিস্থিতি নিরুপণের জন্য অডিট করার নির্দেশনা দিয়ে বলেন, আর্থিক অনিয়মের  সাথে কেউ জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এসময় তিনি স্বাস্থ্যসম্মত দেশীয় আখের চিনি ব্যবহারের জন্য ভোক্তাদের প্রতি আহ্বান জানান।

সভায় জানানো হয়, আখ মাড়াই স্থগিত থাকা চিনিকলগুলোতে শান্তিপূর্ণ পরিবেশে আখ ক্রয় করা হচ্ছে। চিনিকলগুলোতে কর্মরত শ্রমিকদের বকেয়া বেতন শীঘ্রই পরিশোধ করা হবে। আরো জানানো হয়, চিনিকলগুলোতে আখ থেকে চিনি উৎপাদনে শিল্প মন্ত্রণালয়ের পক্ষ হতে মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার করা হয়েছে। ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় ব্যবস্থাপনা পরিচালকগণ চিনিকলগুলোর আখ মাড়াই কার্যক্রমের সর্বশেষ পরিস্থিতি উপস্থাপন করেন। এসময় আখচাষিদের নিকট হতে আরো দ্রুত আখ ক্রয় ও চিনি উৎপাদনের রিকভারি রেট ৮ (আট) শতাংশে রাখার তাগিদ দেয়া হয়। 

সভায় প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব বলেন, আখ থেকে চিনি উৎপাদন কম হওয়ায় লোকসান সত্ত্বেও কৃষকদের কথা চিন্তা করে চিনিকলগুলোর উৎপাদন কার্যক্রম চালু রাখা হচ্ছে। সংশ্লিষ্ট সকলের কাছ থেকে সহযোগিতা পাওয়ায় আখ চাষিরাও উপকৃত হচ্ছে। সভায় এগ্রো প্রসেসিং ইন্ডাস্ট্রিজ স্থাপনসহ নতুন কৃষিজ পণ্য উৎপাদনের মাধ্যমে বিএসএফআইসি’র সম্পদকে কাজে লাগানোর পরামর্শ দেন তিনি।

বিঃদ্রঃ মানব সংবাদ সব ধরনের আলোচনা-সমালোচনা সাদরে গ্রহণ ও উৎসাহিত করে। অশালীন ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য পরিহার করুন। এটা আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে